Sunday, September 27, 2015

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদ

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদ
আজ ২৭ সেপ্টেম্বর আশ্বিন মাসের পূর্ণিমা।যাকে বলে  সুপারমুন।আজকে দেখা দিয়েছে  অতিকায় চাঁদের। 
পৃথিবীতে ৩০ বছর পর  বিরল এই ঘটনা ঘটে। সে চাঁদের একটা ছবি রাত ৯.৩০ মিনিটে তোললাম।
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫৯.৩০ মিনিটেতোলা
এর রং হবে রক্তলাল।চাঁদ যখন তার স্বাভাবিক অক্ষ থেকে কিছুটা সরে এসে পৃথিবীর কাছাকাছি অবস্থান করে তখন আকাশে সুপারমুন দেখা যায়।
 এই  চাঁদ স্বাভাবিকের চেয়ে ১৪%বেশি উজ্জ্বল ও বড় । ত
আজ ২৭ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের সময় সন্ধ্যা ৭টা ৪১ থেকে রাত ৯টা ৩৭ মিনিট পর্যন্ত  এই চাঁদ স্থায়ী ছিল ।
আজকে চন্দ্র গ্রহণও !
উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, আটলান্টিক মহাসাগর, গ্রিনল্যান্ড, ইউরোপ, আফ্রিকা, ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে
এই উত্তেজনাকর চন্দ্রগ্রহণ অবলোকন করা যাবে।
পৃথিবীর সব জায়গা থেকে এই ঘটনা দেখা যাবে না।
বাংলাদেশসহ এশিয়ার দর্শকরা চাঁদের এ দুর্লভ দৃশ্য দেখতে বঞ্চিত হবেন।
এসময় পূর্ণ চন্দ্র গ্রহণ ঢেকে দেবে চাঁদের আকাশকে।
প্রাকৃতিক বিস্ময়কর ও বিরল ৭২ মিনিটের এই ঘটনা উপভোগ করতে যারা ব্যর্থ হবেন,
তাদের দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে।


২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদের এই অনন্য ঘটনা আবার দেখতে পাবেন ২০৩৩ সালে ।
 এর আগে এরকম দৈত্যাকায় রক্তিম পূর্ণ-চন্দ্রগ্রহণের ঘটনা ঘটেছিল ১৯৮২ সালে।
গত একশো বছরে মাত্র পাঁচ বার এই সুযোগ পাওয়া গিয়েছিলো ।
 নাসার ওয়বসাইটে এ সংক্রান্ত বিস্তারিত খবর প্রকাশ হয়েছে।
 এই বিরল ঘটনাকে স্মরণীয় করে রাখতে নাসার পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে ।
 নাসা টিভি লাইভ সম্প্রচার করবে।
প্রতি মাসেই চাঁদ তাঁর উপবৃত্তাকার কক্ষপথে প্রদক্ষিণ করতে করতে পৃথিবীর কাছাকাছি চলে আসে।
 কিন্ত, পূর্ণ-চাঁদ হয়ে পৃথিবীর কাছে আসা নি:সন্দেহে বিরল ঘটনা।

Sunday, September 27, 2015

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদ

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদ
আজ ২৭ সেপ্টেম্বর আশ্বিন মাসের পূর্ণিমা।যাকে বলে  সুপারমুন।আজকে দেখা দিয়েছে  অতিকায় চাঁদের। 
পৃথিবীতে ৩০ বছর পর  বিরল এই ঘটনা ঘটে। সে চাঁদের একটা ছবি রাত ৯.৩০ মিনিটে তোললাম।
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫৯.৩০ মিনিটেতোলা
এর রং হবে রক্তলাল।চাঁদ যখন তার স্বাভাবিক অক্ষ থেকে কিছুটা সরে এসে পৃথিবীর কাছাকাছি অবস্থান করে তখন আকাশে সুপারমুন দেখা যায়।
 এই  চাঁদ স্বাভাবিকের চেয়ে ১৪%বেশি উজ্জ্বল ও বড় । ত
আজ ২৭ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের সময় সন্ধ্যা ৭টা ৪১ থেকে রাত ৯টা ৩৭ মিনিট পর্যন্ত  এই চাঁদ স্থায়ী ছিল ।
আজকে চন্দ্র গ্রহণও !
উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, আটলান্টিক মহাসাগর, গ্রিনল্যান্ড, ইউরোপ, আফ্রিকা, ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে
এই উত্তেজনাকর চন্দ্রগ্রহণ অবলোকন করা যাবে।
পৃথিবীর সব জায়গা থেকে এই ঘটনা দেখা যাবে না।
বাংলাদেশসহ এশিয়ার দর্শকরা চাঁদের এ দুর্লভ দৃশ্য দেখতে বঞ্চিত হবেন।
এসময় পূর্ণ চন্দ্র গ্রহণ ঢেকে দেবে চাঁদের আকাশকে।
প্রাকৃতিক বিস্ময়কর ও বিরল ৭২ মিনিটের এই ঘটনা উপভোগ করতে যারা ব্যর্থ হবেন,
তাদের দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে।


২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর চাঁদের এই অনন্য ঘটনা আবার দেখতে পাবেন ২০৩৩ সালে ।
 এর আগে এরকম দৈত্যাকায় রক্তিম পূর্ণ-চন্দ্রগ্রহণের ঘটনা ঘটেছিল ১৯৮২ সালে।
গত একশো বছরে মাত্র পাঁচ বার এই সুযোগ পাওয়া গিয়েছিলো ।
 নাসার ওয়বসাইটে এ সংক্রান্ত বিস্তারিত খবর প্রকাশ হয়েছে।
 এই বিরল ঘটনাকে স্মরণীয় করে রাখতে নাসার পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে ।
 নাসা টিভি লাইভ সম্প্রচার করবে।
প্রতি মাসেই চাঁদ তাঁর উপবৃত্তাকার কক্ষপথে প্রদক্ষিণ করতে করতে পৃথিবীর কাছাকাছি চলে আসে।
 কিন্ত, পূর্ণ-চাঁদ হয়ে পৃথিবীর কাছে আসা নি:সন্দেহে বিরল ঘটনা।