Tuesday, December 15, 2015

The Victory Day on December 16


The Victory Day on December 16
The Victory Day is celebrated on December 16 every year in Bangladesh. 197 Opened in January as a circular on December 16, the National Day is the official way to celebrate the Victory Day holiday was declared on December 16.
After long 9 months of war, occupation Suhrawardy Udyan in Dhaka on December 16, 1971, nearly 91.634 members of the leading Pakistani forces in Pakistan's eastern military commander Amir Shaikh Abdullah Khan Niazi surrendered to the Allied forces in favor of the Indian General Jagjit Singh Aurora, through the earth, a new independent Bangladesh and to the emergence of a sovereign state.

On December 16 the morning of the day of the 31-gun salute marked the beginning of time.
 Combined military parade was held at the National Parade Square. The head of the parade and took salute the President or the Prime Minister. Bangladesh Liberation War (1971), who paid homage to the martyrs at the National Memorial at Savar near Dhaka as part of the president, prime minister, opposition political activists, and people of different social and cultural organizations have been placed wreaths.
Bunch of flowers at the sarcophagus of memories continues until dawn delivery.

In the early hours of 16 December, 12.0 A.M at the wreaths.
Photo- Derai, sunamganj 2013

Bangla

বাংলাদেশের বিজয় দিবস ১৬ই ডিসেম্বর

সারা বাংলাদেশে প্রতি বছর ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালিত হয়। ১৯৭২ সালের ২২শে জানুয়ারী সরকারী এক প্রজ্ঞাপনে ১৬ই ডিসেম্বর  বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয় ।সরকারীভাবে ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস ছুটি ঘোষণা করা হয়।
দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনীর প্রায় ৯১,৬৩৪ সদস্যের নেতৃত্ব দান কারী পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় সামরিক কমান্ডার আমির আবদুল্লাহ খান নিয়াজী মিত্র বাহিনীর পক্ষে ভারতের জেনারেল  জগজিত সিং অরোরার  নিকট আত্মসমর্পণ করার মধ্য দিয়ে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে একটি নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যুদয় হয়।
 ১৬ই ডিসেম্বর ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা ঘটে।
 জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে অনুষ্ঠিত সম্মিলিত সামরিক কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়।কুচকাওয়াজের সালাম গ্রহণ করেন বাংলাদেশের প্রধান মাননীয় রাষ্ট্রপতি অথবা প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে (১৯৭১ সাল) যারা শহীদ হয়েছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের অংশ হিসেবে ঢাকার অদূরে  সাভারে অবস্থিত জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী দলীয় রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ এবং জনগণ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে থাকেন।পূস্প স্তবক অর্পণ ভোর হতে দুপুর পর্যন্ত চলতে থাকে।
সারা দেশে ১৬ ডিসেম্বরের প্রথম প্রহরে ১২.০১মিনিটে পুষ্প স্তবক অর্পণ করা হয়।

Tuesday, December 15, 2015

The Victory Day on December 16


The Victory Day on December 16
The Victory Day is celebrated on December 16 every year in Bangladesh. 197 Opened in January as a circular on December 16, the National Day is the official way to celebrate the Victory Day holiday was declared on December 16.
After long 9 months of war, occupation Suhrawardy Udyan in Dhaka on December 16, 1971, nearly 91.634 members of the leading Pakistani forces in Pakistan's eastern military commander Amir Shaikh Abdullah Khan Niazi surrendered to the Allied forces in favor of the Indian General Jagjit Singh Aurora, through the earth, a new independent Bangladesh and to the emergence of a sovereign state.

On December 16 the morning of the day of the 31-gun salute marked the beginning of time.
 Combined military parade was held at the National Parade Square. The head of the parade and took salute the President or the Prime Minister. Bangladesh Liberation War (1971), who paid homage to the martyrs at the National Memorial at Savar near Dhaka as part of the president, prime minister, opposition political activists, and people of different social and cultural organizations have been placed wreaths.
Bunch of flowers at the sarcophagus of memories continues until dawn delivery.

In the early hours of 16 December, 12.0 A.M at the wreaths.
Photo- Derai, sunamganj 2013

Bangla

বাংলাদেশের বিজয় দিবস ১৬ই ডিসেম্বর

সারা বাংলাদেশে প্রতি বছর ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালিত হয়। ১৯৭২ সালের ২২শে জানুয়ারী সরকারী এক প্রজ্ঞাপনে ১৬ই ডিসেম্বর  বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয় ।সরকারীভাবে ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস ছুটি ঘোষণা করা হয়।
দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনীর প্রায় ৯১,৬৩৪ সদস্যের নেতৃত্ব দান কারী পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় সামরিক কমান্ডার আমির আবদুল্লাহ খান নিয়াজী মিত্র বাহিনীর পক্ষে ভারতের জেনারেল  জগজিত সিং অরোরার  নিকট আত্মসমর্পণ করার মধ্য দিয়ে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে একটি নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যুদয় হয়।
 ১৬ই ডিসেম্বর ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা ঘটে।
 জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে অনুষ্ঠিত সম্মিলিত সামরিক কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়।কুচকাওয়াজের সালাম গ্রহণ করেন বাংলাদেশের প্রধান মাননীয় রাষ্ট্রপতি অথবা প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে (১৯৭১ সাল) যারা শহীদ হয়েছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের অংশ হিসেবে ঢাকার অদূরে  সাভারে অবস্থিত জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী দলীয় রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ এবং জনগণ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে থাকেন।পূস্প স্তবক অর্পণ ভোর হতে দুপুর পর্যন্ত চলতে থাকে।
সারা দেশে ১৬ ডিসেম্বরের প্রথম প্রহরে ১২.০১মিনিটে পুষ্প স্তবক অর্পণ করা হয়।