Tuesday, December 15, 2015

Kalijira rice fields

Kalijira rice fields

This is known as rice in Bangladesh kalijira.
Kalijira the name of the color is black rice.
The rice and fragrant rice is better.
The paddy rice basamati name.
Basumati delicious rice to eat.
Polau kalijira rice is used in cooking.
Polau be kalijira including rice biryani, hodgepodge, Khir-Pays, phirani and chewing are produced.
This new guests arrived at the village fete prepared a meal of rice, the ancient practice of Bengal.
Polau cooked rice to be served at a wedding reception is kalijira.
Currently kalijira hybrid rice varieties have taken place.
  Kalijira not only rice, the country's growing demand for food from Nature-thousand varieties of local rice is lost.
There are more varieties of rice, which is less than the yield of rice farmers in the cultivation of rice was low.
Acres of other varieties where the attack occurred, there is a maximum of 0 to 15, the highest of the eight measures kalijira rice yields.
  However, the market can be sold at twice.
Kalijira paddy rice available in the market at 100 to 110 taka per kg.
Kalijira rice is a traditional rice to Bangladesh.
Babgla
কালিজিরা ধান ক্ষেত
বাংলাদেশে এই জাতের ধান গুলোকে কালিজিরা ধান বলা হয়।
ধানের রং কালো হয় বলে নাম কালিজিরা।
এই ধানের চাল উৎকৃষ্ট এবং বেশ সুগন্ধ রয়েছে ।
এই ধানের চালকে বাসমতি চাল বলা হয়।
বাসুমতি চালের ভাত খেতে সুস্বাদু।
কালিজিরা চাল পোলাউ রান্নায় ব্যবহার করা হয়।
কালিজিরা চাল থেকে পোলাউ ছাড়া বিরিয়ানি, খিচুড়ি, খির-পায়েস, ফিরনি ও জর্দা তৈরী করা হয়।
বাড়িতে আগত নতুন অতিথিদের এই চালের খাবার তৈরী করে আপ্যায়ন করা গ্রাম বাঙলার প্রাচীন রীতি।
বিয়ের অনুষ্ঠানে কালিজিরা চালের পোলাউ রান্না করে আপ্যায়ন করা হয়।

বর্তমানে কালিজিরা ধানের জায়গা দখল করে নিয়েছে উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান।
 শুধু কালিজিরা ধান নয়, ক্রমবর্ধমান খাদ্যের চাহিদা মেটাতে সারা দেশ থেকেই হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতিবান্ধব হাজারও জাতের দেশি ধান।
উচ্চ ফলনশীল জাতের ধানের চেয়ে এ ধানের ফলন কম হয় বিধায় কৃষকরা এ ধানের চাষ কম করেন।
বিঘা প্রতি অন্য জাতের ধান যেখানে ১৫ থেকে সর্বোচ্চ ২০ মণ উৎপন্ন হয় সেখানে কালিজিরা ধানের ফলন হয় সর্বোচ্চ আট মণ।
 তবে বাজারে দ্বিগুণ মূল্যে বিক্রয় করা যায়।
কালিজিরা ধানের চাল প্রতি কেজি ১০০ টাকা হতে ১১০ টাকায় বাজারে পাওয়া যায় ।
কালিজিরা ধান বাংলাদেশের একটি ঐতিয্যবাহী ধান।

Tuesday, December 15, 2015

Kalijira rice fields

Kalijira rice fields

This is known as rice in Bangladesh kalijira.
Kalijira the name of the color is black rice.
The rice and fragrant rice is better.
The paddy rice basamati name.
Basumati delicious rice to eat.
Polau kalijira rice is used in cooking.
Polau be kalijira including rice biryani, hodgepodge, Khir-Pays, phirani and chewing are produced.
This new guests arrived at the village fete prepared a meal of rice, the ancient practice of Bengal.
Polau cooked rice to be served at a wedding reception is kalijira.
Currently kalijira hybrid rice varieties have taken place.
  Kalijira not only rice, the country's growing demand for food from Nature-thousand varieties of local rice is lost.
There are more varieties of rice, which is less than the yield of rice farmers in the cultivation of rice was low.
Acres of other varieties where the attack occurred, there is a maximum of 0 to 15, the highest of the eight measures kalijira rice yields.
  However, the market can be sold at twice.
Kalijira paddy rice available in the market at 100 to 110 taka per kg.
Kalijira rice is a traditional rice to Bangladesh.
Babgla
কালিজিরা ধান ক্ষেত
বাংলাদেশে এই জাতের ধান গুলোকে কালিজিরা ধান বলা হয়।
ধানের রং কালো হয় বলে নাম কালিজিরা।
এই ধানের চাল উৎকৃষ্ট এবং বেশ সুগন্ধ রয়েছে ।
এই ধানের চালকে বাসমতি চাল বলা হয়।
বাসুমতি চালের ভাত খেতে সুস্বাদু।
কালিজিরা চাল পোলাউ রান্নায় ব্যবহার করা হয়।
কালিজিরা চাল থেকে পোলাউ ছাড়া বিরিয়ানি, খিচুড়ি, খির-পায়েস, ফিরনি ও জর্দা তৈরী করা হয়।
বাড়িতে আগত নতুন অতিথিদের এই চালের খাবার তৈরী করে আপ্যায়ন করা গ্রাম বাঙলার প্রাচীন রীতি।
বিয়ের অনুষ্ঠানে কালিজিরা চালের পোলাউ রান্না করে আপ্যায়ন করা হয়।

বর্তমানে কালিজিরা ধানের জায়গা দখল করে নিয়েছে উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান।
 শুধু কালিজিরা ধান নয়, ক্রমবর্ধমান খাদ্যের চাহিদা মেটাতে সারা দেশ থেকেই হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতিবান্ধব হাজারও জাতের দেশি ধান।
উচ্চ ফলনশীল জাতের ধানের চেয়ে এ ধানের ফলন কম হয় বিধায় কৃষকরা এ ধানের চাষ কম করেন।
বিঘা প্রতি অন্য জাতের ধান যেখানে ১৫ থেকে সর্বোচ্চ ২০ মণ উৎপন্ন হয় সেখানে কালিজিরা ধানের ফলন হয় সর্বোচ্চ আট মণ।
 তবে বাজারে দ্বিগুণ মূল্যে বিক্রয় করা যায়।
কালিজিরা ধানের চাল প্রতি কেজি ১০০ টাকা হতে ১১০ টাকায় বাজারে পাওয়া যায় ।
কালিজিরা ধান বাংলাদেশের একটি ঐতিয্যবাহী ধান।