Monday, April 10, 2017

বাংলাদেশের কেষ্ট ঠাকুররা সাধারণ জনগণের জন্য প্রার্থণা করেন না



বাংলাদেশের কেষ্ট ঠাকুররা সাধারণ জনগণের জন্য প্রার্থণা করেন না

কেষ্ট ঠাকুর অতিশয় ভক্তিতে ভগবানের কাছে প্রার্থণা করিয়া কহিলেন-
ভগবান সিংহ বিজাতীয় প্রাণি,নৌকার জয় হোক
ভগবান কহিলেন-,
সিংহ নেই ধান ?
কেষ্ট ঠাকুর হাতজোড় করে কহিলেন,-
ধান নেই ভগবান।
ভগবান কহিলেন ,-‘তথাস্তু!’
ভগবান বুঝলেন জানলেন যে, কেষ্ট ঠাকুরদের দেশে সিংহ নেই অতএব সিংহ দ্বারা ক্ষতির আশংকা নেই কেষ্ট ঠাকুর নৌকা চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত জল প্রয়োজন করে প্রার্থণা করেছেন কিন্তু ভগবান জানেন এই অসময়ে জল হলে কৃষকের ধানের ক্ষতি হতে পারে কিন্তু কেষ্ট ঠাকুরের ধান নেই কথাতে ভগবান বুঝিলেন ধানের ক্ষতি হবে না বা তার চেয়ে প্রয়োজন নৌকার চলাচল

Friday, April 7, 2017

পরিবার তন্ত্র বনাম গণতন্ত্র , তারচেয়ে বড় কেন নয় সাধারণ মানুষের অধিকার তন্ত্র ?



পরিবার তন্ত্র বনাম গণতন্ত্র , তারচেয়ে বড় কেন নয় সাধারণ মানুষের অধিকার তন্ত্র ?

বাংলাদেশে দুই রহমান এক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান এর অপ্রত্যাশিত মৃত্যুতে গণতন্ত্রের অপূরণীয ক্ষতি হয় ।যদিও শেখ মজিবুর রহমান একদল বাকশাল  এবং সেনাবাহিনীর প্রতিদ্বন্দি রক্ষীবাহিনী গঠন না করলে গণতন্ত্র মুক্তি পেতে পারতো। পরকর্তীতে জিয়াউর রহমান গণতন্ত্রের মুক্তি দেন হয় ।রব উত্থান ঘটে অজকের আওয়ামলীগের কিন্তু জেলারেল হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের স্বৈর তন্ত্রের কারণে গণতন্ত্র দুষিত হয় । জেলারেল হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের স্বৈর তন্ত্রের কারণে বাংলাদেশে উত্থান ঘটে উত্তরাধিকারী সূত্রে পরিবারতন্ত্রের । আজকের দেশের জনগণ পরিবার তন্ত্রের হাতে বন্ধী।এই পরিবারতন্ত্রেও তত্বাবধায়রক নির্বচন পদ্ধতিতে গণতন্ত্র প্রত্যাশা করছিল জনগণ ।কিন্তু পরিবার তন্ত্রের জুজু চেপে বসেছে বাংলাদেশের ঘাড়ে ।যেনো এর থেকে পরিত্রাণের কোন উপায় নেই অসহায় জনগণের। পরিবারতন্ত্র কি জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পেরেছে বা পারবে ?এক কথায় বলা যেতে পারে না।বরং পরিবার তন্ত্রের পিতা মাতা স্ত্রী সন্তানদের স্তুতি প্রচারের মাধ্যম হয়েছে পরিবারতন্ত্র।পরিবারতন্ত্রে বৈষম্য.স্বজনপ্রীতি ও দুর্নীতির মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তণ করা হচ্ছে,সাথারণ জনগণকে করা হচ্ছে দয়ার পাত্র। এই অবস্থায় জনগণের ভোটের অধিকার বঞ্চিতের ৫ জানুয়ারীর মতো নির্বাচনে ক্ষমতায় আরোহন করাকে প্রত্যক্ষ ভাবে সংবিধানীক নীতি বলে ধরা হয় ,এখানে জনগণের অধিকার গৌণ।।

Monday, April 10, 2017

বাংলাদেশের কেষ্ট ঠাকুররা সাধারণ জনগণের জন্য প্রার্থণা করেন না



বাংলাদেশের কেষ্ট ঠাকুররা সাধারণ জনগণের জন্য প্রার্থণা করেন না

কেষ্ট ঠাকুর অতিশয় ভক্তিতে ভগবানের কাছে প্রার্থণা করিয়া কহিলেন-
ভগবান সিংহ বিজাতীয় প্রাণি,নৌকার জয় হোক
ভগবান কহিলেন-,
সিংহ নেই ধান ?
কেষ্ট ঠাকুর হাতজোড় করে কহিলেন,-
ধান নেই ভগবান।
ভগবান কহিলেন ,-‘তথাস্তু!’
ভগবান বুঝলেন জানলেন যে, কেষ্ট ঠাকুরদের দেশে সিংহ নেই অতএব সিংহ দ্বারা ক্ষতির আশংকা নেই কেষ্ট ঠাকুর নৌকা চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত জল প্রয়োজন করে প্রার্থণা করেছেন কিন্তু ভগবান জানেন এই অসময়ে জল হলে কৃষকের ধানের ক্ষতি হতে পারে কিন্তু কেষ্ট ঠাকুরের ধান নেই কথাতে ভগবান বুঝিলেন ধানের ক্ষতি হবে না বা তার চেয়ে প্রয়োজন নৌকার চলাচল

Friday, April 7, 2017

পরিবার তন্ত্র বনাম গণতন্ত্র , তারচেয়ে বড় কেন নয় সাধারণ মানুষের অধিকার তন্ত্র ?



পরিবার তন্ত্র বনাম গণতন্ত্র , তারচেয়ে বড় কেন নয় সাধারণ মানুষের অধিকার তন্ত্র ?

বাংলাদেশে দুই রহমান এক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান এর অপ্রত্যাশিত মৃত্যুতে গণতন্ত্রের অপূরণীয ক্ষতি হয় ।যদিও শেখ মজিবুর রহমান একদল বাকশাল  এবং সেনাবাহিনীর প্রতিদ্বন্দি রক্ষীবাহিনী গঠন না করলে গণতন্ত্র মুক্তি পেতে পারতো। পরকর্তীতে জিয়াউর রহমান গণতন্ত্রের মুক্তি দেন হয় ।রব উত্থান ঘটে অজকের আওয়ামলীগের কিন্তু জেলারেল হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের স্বৈর তন্ত্রের কারণে গণতন্ত্র দুষিত হয় । জেলারেল হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের স্বৈর তন্ত্রের কারণে বাংলাদেশে উত্থান ঘটে উত্তরাধিকারী সূত্রে পরিবারতন্ত্রের । আজকের দেশের জনগণ পরিবার তন্ত্রের হাতে বন্ধী।এই পরিবারতন্ত্রেও তত্বাবধায়রক নির্বচন পদ্ধতিতে গণতন্ত্র প্রত্যাশা করছিল জনগণ ।কিন্তু পরিবার তন্ত্রের জুজু চেপে বসেছে বাংলাদেশের ঘাড়ে ।যেনো এর থেকে পরিত্রাণের কোন উপায় নেই অসহায় জনগণের। পরিবারতন্ত্র কি জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পেরেছে বা পারবে ?এক কথায় বলা যেতে পারে না।বরং পরিবার তন্ত্রের পিতা মাতা স্ত্রী সন্তানদের স্তুতি প্রচারের মাধ্যম হয়েছে পরিবারতন্ত্র।পরিবারতন্ত্রে বৈষম্য.স্বজনপ্রীতি ও দুর্নীতির মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তণ করা হচ্ছে,সাথারণ জনগণকে করা হচ্ছে দয়ার পাত্র। এই অবস্থায় জনগণের ভোটের অধিকার বঞ্চিতের ৫ জানুয়ারীর মতো নির্বাচনে ক্ষমতায় আরোহন করাকে প্রত্যক্ষ ভাবে সংবিধানীক নীতি বলে ধরা হয় ,এখানে জনগণের অধিকার গৌণ।।